সীরাতে মুস্তফা সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম (১ম-৩য় খণ্ড)

সীরাতে মুস্তফা সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম (১ম-৩য় খণ্ড)'s Category :

সীরাতে মুস্তফা সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম (১ম-৩য় খণ্ড)'s Publication :

সীরাতে মুস্তফা সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম (১ম-৩য় খণ্ড)'s Writer :

সীরাতে মুস্তফা সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম (১ম-৩য় খণ্ড)


"সীরাতে মুস্তফা সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম (১ম-৩য় খণ্ড)" বইটির মূল্য

নতুন বইঃ 895 Taka


"সীরাতে মুস্তফা সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম (১ম-৩য় খণ্ড)" বইটির বিস্তারিত

Translator মাওলানা মুহাম্মদ যুবায়ের ছাহেব

দুনিয়ার বুকে যে মানুষটিকে সবচেয়ে বেশি অনুসরণ করা হয়, সবচেয়ে বেশি ভালবাসা হয়, যার জীবনকাহিনী নিয়ে সবচেয়ে বেশি আলোচনা হয় তিনি হলেন মুহাম্মাদুর রসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। একজন মুসলিম হিসেবে অবশ্যই আমাদেরকে তাঁর(সঃ) জীবনী তথা সীরাত জানতে হবে। কেননা যাকে অনুসরণ করা হবে তার পরিচয় না জানলে তাকে অনুসরণ করা যাবে না। রাসূলের হাদিস আর রাসূলের সীরাত ভিন্ন দুটি বিষয় হলেও একটি অপরটির সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। একটিকে বাদ দিয়ে অপরটিকে কল্পনা করা যায় না। প্রসিদ্ধির দিক দিয়ে সীরাত ইবনে হিশাম এগিয়ে থাকলেও সহজবোধ্যতা ও দালিলিক দিক দিয়ে আমার কাছে আল্লামা ইদ্রিস কান্ধলবীর সীরাতে মুস্তফা বিশেষ গুরুত্বের দাবি রাখে। এটির বিশেষ দিক হল এই সীরাতটি আধুনিক যুগের কিছু সীরাতের মত পশ্চিমা আদর্শ ঘেঁষা ও সংক্ষিপ্ত নয়। এখানে লেখক অকপটে আল্লাহর রাসূলের জিহাদি জীবন, দাওয়াহর ক্ষেত্রে আপোষহীনতা, মুজিযা ইত্যাদির আলোচনা করেছেন অত্যন্ত চমৎকারভাবে। যেখানে আধুনিক অনেক সীরাতের কিতাবেই বিষয়গুলোকে ভালভাবে আলোচনা করা হয়নি। এই গ্রন্থে বিভিন্ন ঘটনার সাথে তার ফিকহি ব্যাপারও আলোচনা করা হয়েছে, এছাড়াও প্রতিটি ঘটনার সাথেই রয়েছে দলিল ও বর্ণনাকারিদের পরিচয় ও তাদের গ্রহণযোগ্যতার ব্যাপারে সালাফদের মূল্যায়ন, যা এই কিতাবটিকে বিশেষ বৈশিষ্ট্য দান করেছে। আর এই প্রকাশনীর অনুবাদটি অত্যন্ত সহজবোধ্য। পৃষ্ঠার পর পৃষ্ঠা পড়ে গেলেও বিরক্তি আসবে না ইনশা আল্লাহ। বইটি কিনুন আর ১৪০০ বছর পরে এসেও বইয়ের পাতায় পরিভ্রমণ করুন নববী যুগে। সবার ঘরেই এই মূল্যবান কিতাবটি থাকা উচিত বলে মনে করি।

লেখক পরিচিতিঃ শাইখুল হাদিস ও বিশিষ্ট সীরাত বিশারদ আল্লামা ইদরীস কান্ধলবী(রহ) ছিলেন উপমহাদেশের বিখ্যাত মুহাদ্দিস আনোয়ার শাহ কাশ্মীরি(রহ) এর ছাত্র এবং ইলম ও আধ্যাত্মিকতার ক্ষেত্রে উনার উত্তরাধিকারী। লেখক দীর্ঘদিন পর্যন্ত দারুল উলুম দেওবন্দে তাফসীর, হাদিস এবং ফিকহ বিষয় অধ্যাপনার গুরুদায়িত্ব পালন করেন। অতঃপর তিনি লাহোরের জামিয়া আশরাফিয়ায় শাইখুল হাদিসের গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত হন। ১৩৯৪ হিজরির রজব মাসে তিনি ইন্তেকাল করেন।

গ্রন্থটি মোট তিন খন্ডে প্রকাশিত। প্রথম খন্ডটি শুরু হয়েছে রসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের পবিত্র বংশ পরিচিতি নিয়ে। এরপর শুভ জন্ম, লালন পালন, ব্যবসার সফর, খাদিজার(রা) সাথে বিবাহ, নব্যুওয়্যাত প্রাপ্তি, কাছের মানুষদের দাওয়াহর মাধ্যমে ইসলামে দীক্ষিতকরণ, কুরাইশ মুশরিকদের দ্বারা নির্যাতনের স্বীকার, সাহাবাদের ঈমানের উপর অটল থাকার কঠিন পরীক্ষা, হাবশায় হিজরত, তায়েফ গমন, মিরাজ, বাইয়াত, মদিনায় হিজরত, সম্পদের যাকাত ইত্যাদি বিভিন্ন বিষয় নিয়ে প্রথম খন্ডটি সমাপ্ত হয়েছে।

দ্বিতীয় খন্ডটি শুরু হয়েছে আল্লাহর রাস্তায় জিহাদের হুকুম আলোচনা করে। এরপর গাযওয়া ও সারিয়্যার পার্থক্য ও ছোট ছোট গাযওয়া ও সারিয়্যার আলোচনা, বদরের যুদ্ধের বিস্তারিত আলোচনা, যুদ্ধের ময়দানে মুশরিকদের হত্যা, গণিমত বন্টন, বদরের যুদ্ধে অংশগ্রহণকারি সাহাবিদের মর্যাদা, ঈদুল ফিতরের নামাজ, ঈদুল আযহা, উহুদ যুদ্ধ, পর্দার হুকুম অবতরণ, গাযওয়ায়ে খন্দক ও আহযাব, গাযওয়ায়ে বনী কুরাইযা, হুদাইবিয়ার সন্ধি, বাইয়াতুর রিদওয়ান, বিশ্বের বিভিন্ন বাদশাহের উদ্দেশ্যে ইসলামের দাওয়াতি পত্র প্রেরণ, গাযওয়ায়ে খায়বার ইত্যাদি বিভিন্ন বিষয় নিয়ে এই খন্ডটি সমাপ্ত হয়েছে।

তৃতীয় খন্ডটি শুরু হয়েছে মক্কা বিজয়ের বিস্তারিত বিবরণ নিয়ে। এরপর গাযওয়ায়ে হুনাইন, তায়িফ, মুতয়া বিবাহ নিষিদ্ধকরণ, গাযওয়ায়ে তাবুক, বিভিন্ন গোত্রে প্রতিনিধিদল প্রেরণ, বিদায় হজ, পরকালিন সফরের প্রস্তুতি, অসুস্থতার সূচনা, অন্তিম মুহূর্ত, ইন্তিকাল, জানাযার নামাজ, দাফন, বিভিন্ন সন্দেহ ও উত্থাপিত প্রশ্নের খন্ডন, উম্মুল মুমিনিনদের পরিচয়, আল্লাহর রাসূলের সন্তানাদি, রাসূলের পোশাক পরিচ্ছদ, মুজিযা, রাসূলুল্লাহ সম্পর্কে পূর্ববর্তী আম্বিয়া কেরামের ভবিষ্যদ্বাণী এবং লেখকের ব্যক্তিগত কৈফিয়ত নিয়ে খন্ডটি শেষ হয়েছে। লেখক বলেছেন, গ্রন্থের কলেবর বৃদ্ধির কারণে তিনি রাসূলের সকল বৈশিষ্ট্য ও মুজিযা এখানে সন্নিবেশিত করেননি।

প্রতিটি খন্ডের শুধুমাত্র গুরুত্বপূর্ণ ঘটনাগুলোর শিরোনাম এই পোস্টে উল্লেখ করা হয়েছে। অনেক কিছুই এখানে উল্লেখ করা যায়নি। মহান আল্লাহ এই কালজয়ী কিতাব থেকে আমাদেরকে উপকৃত হওয়ার তাওফিক দান করুন এবং একে লেখকের জন্য নাজাতের উসীলা বানিয়ে দিন। আমিন।( রিভিউ লেখক : Ibn Mukter)
0