কবুল করুন আপনার আমানত

কবুল করুন আপনার আমানত's Category :

কবুল করুন আপনার আমানত's Publication :

কবুল করুন আপনার আমানত's Writer :

কবুল করুন আপনার আমানত


"কবুল করুন আপনার আমানত" বইটির মূল্য

নতুন বইঃ 10 Taka


"কবুল করুন আপনার আমানত" বইটির বিস্তারিত

অনুবাদকঃআবু তাহের মিসবাহ।
মূল্যঃ১০ টাকা
.
(১)মানুষ হিসেবে পরকালে সফলকামের পূর্বশর্ত হলো ঈমান।
মানুষের ঈমান আল্লাহপ্রদত্ত দান।যে ঈমানের মহাদৌলত পেয়েছে সেই কামিয়াব হয়েছে।এটা নিজের অর্জিত কোন সম্পদ নয়।যা ইচ্ছে করলেই পাওয়া যাবে,যদি আল্লাহ না চান।তাইতো আবু তালেব নবী করীম সঃ এর জীবনের সাথে অঙ্গাঙ্গীভাবে জড়িত থেকেও ঈমানের মহাসম্পদ লাভে ব্যর্থ হন!আর ঈমান থাকার পর তা নিয়ে আত্মগরিমা, অহংকার আসার কারণে যুগশ্রেষ্ঠ মুহাদ্দিস ও তাফসীরবিদ,জুনায়েদ বাগদাদী ও শিবলীর প্রাণপ্রিয় উস্তাদ আল্লামা আবু আব্দুল্লাহ উন্দূলুসী পথভ্রষ্ট হয়ে যান(যদিও পরে ঈমান লাভ করেন)! অথচ উনার ত্রিশহাজার মতান্তরে চল্লিশহাজার হাদীস মুখস্থ ছিল।ছিল সম্পূর্ণ কুরআনুল কারীমও মুখস্থ। কিন্তু.....
.
(২)
মানুষ যখন আল্লাহকে ভুলে জাহেলিয়াতকে বেছে নিয়েছিল।খুন- রাহাজানি, ধর্ষণ আর লোলুপতায়য় নিমজ্জিত হয়েছিল,তখন পথহারা মানুষকে আলোর পথ দেখাতে, ঈমানহীন মানুষকে তাওহীদের ছায়াতলে আনতে প্রেরণ করেন মুহাম্মদ সঃ কে।তিনি এসে দূর করেন সব জাহিলিয়াত।মানুষকে একত্রিত করেন তাওহিদের ছায়াতলে,ঈমানের মহাদৌলতে! তার এ কাজ সেখানেই শেষ হয়নি।তিনি তার দায়িত্ব অর্পণ করে যান তার উম্মতে কাছে!
.
(৩)
কিন্তু আমরা উদাসীনতায় গাফিল।মুসলিম উম্মাহ ভুলে যাচ্ছে তাদের দায়িত্ব-কর্তব্য!আজ শুধু ভোগ-বিলাসে নিমজ্জিত তারা।তাইতো আজ এতো অধঃপতন! আমাদের দায়িত্ব ছিলো আমরা অন্যের ধর্মের মানুষকে দীনের দিকে আহবান করব।তাদেরকে ইসলামের সৌন্দর্য্ বোঝাবো।কিন্তু আমরা....?কয়জন সে দায়িত্ব পালন করেছি? কিংবা কয়জন সে দায়িত্ব-কর্তব্য নিয়ে চিন্তা করেছি?
.
(৪)
দাওয়াত আদায়ের জন্য
আল্লামা কালিম সিদ্দিকীর অন্তরে মনোবেদনা অনুভব করেন।সবসময় তিনি তা নিয়েও চিন্তিত থাকেন।তাই
মুসলিম উম্মাহত গাফলতি আর সকল মানুষের প্রতি মুসলিম উম্মাহর পক্ষ থেকে দাওয়াতের জন্য দায়িত্ব আদায়ের লক্ষে ছোট আকারে তিনি একটি পুস্তিকা রচনা করেন।যার বাংলা নাম " কবূল করুন আপনার আমানত"। যাতে তিনি ঈমানের হাকীকত ও দাওয়াত সংক্ষিপ্ত অথচ স্বারগর্ভ আলোচনা করেন।যা থেকে একজন মানুষের মনে ঈমানের গুরুত্ব,দাওয়াতের স্পৃহা জন্ম নেবে!
.
(৫)বইটির লেখক আল্লামা কালীম সিদ্দিকী।একজন আলেমে দীন,ইসলামের একনিষ্ঠ খাদেম ও মহান দাঈ।যিনি প্রভাবিত হয়েছেন আবুল হাসান আলী নদভী রহঃ এর দ্বারা।গাছ যেমন ফলও হয়েছে তেমন।তিনি তারই কাছে শিক্ষা ও দীক্ষা লাভ করেন।তিনি একটি মাসিক পত্রিকার সম্পাদক। তার হাতে অসংখ্য বিধর্মী মুসলমান হয়েছেন। আল্লাহ তার হায়াত বৃদ্ধি করুন।আমীন।
.
(৬)বইটির অনুবাদক আল্লামা আবু তাহের মিসবাহ।যার উপমা তিনি নিজেই।ইলমী মহলে তাকে পরিচয় করিয়ে দেওয়া মানে নিজের নির্বুদ্ধিতা প্রকাশ করা।আল্লাহ উনাকে আরো বেশি দীনের খেদমত করার তাওফিক দান করুন।দীর্ঘ হায়াত দান করুন। আমীন।
.
(৭)একজন মুসলমান হিশেবে প্রত্যেকের জন্য বইটা পড়া জরুরি। এর উপকারীতা ব্যাপক। যা ভাষায় প্রকাশ করা অসম্ভব। জীবনের মোড় ঘুরিয়ে দেওয়ার জন্য এই একটা বই-ই যথেষ্ট!আল্লাহ আমাদেরকে ঈমানের সাথে ইন্তেকাল করার তাওফিক দান করুন।আমীন।
0