এসো ইয়াজুজ মাজুজ চিনি

এসো ইয়াজুজ মাজুজ চিনি's Category :

এসো ইয়াজুজ মাজুজ চিনি's Publication :

এসো ইয়াজুজ মাজুজ চিনি's Writer :

এসো ইয়াজুজ মাজুজ চিনি


"এসো ইয়াজুজ মাজুজ চিনি" বইটির মূল্য

নতুন বইঃ 69 Taka


"এসো ইয়াজুজ মাজুজ চিনি" বইটির বিস্তারিত

#বুক_রিভিউ:

এসো ইয়াজুজ-মাজুজ চিনি
লেখক : রাজিব হাসান
পৃষ্ঠা: ৪৮
প্রচ্ছদ মূল্য: ১০০/-
বিষয় : শিশু কিশোরদের বই।
..............
কিয়ামত নিকটবর্তী হবার পর পৃথিবীতে ইয়াজুজ-মাজুজ নামে দুটি চরম অত্যাচারী গোত্রের বহিঃপ্রকাশ ঘটবে।
কিন্ত আমাদের মুসলিমদের অনেকেই ইয়াজুজ-
মাজুজ সম্পর্কে জানা তো দূরে থাক,এদের নামই শোনে নি! বরং না জেনেই বলে বসবে-এরা কারো মায়ের পেটের দুই ভাই।
সুরা কাহফে ৯৪-৯৯ আয়াতে এ ব্যাপারে বলাআছে-
ﻗَﺎﻟُﻮﺍ ﻳَﺎ ﺫَﺍ ﺍﻟْﻘَﺮْﻧَﻴْﻦِ ﺇِﻥَّ ﻳَﺄْﺟُﻮﺝَ ……
তারা বললঃ হে যুলকারনাইন, ইয়াজুজ ও মাজুজ
দেশে অশান্তি সৃষ্টি করেছে….আপনি আমাদের ও
তাদের মধ্যে একটি প্রাচীর নির্মাণ করে দেবেন।
ইয়াজূজ মাজূজ সম্প্রদায় আদম (আঃ)-এর বংশধর।
তারা ক্বিয়ামতের প্রাক্কালে ঈসা (আঃ)-এর সময়
পৃথিবীতে উত্থিত হবে।শাসক যুলক্বারনাইন তাদেরকে এখন প্রাচীর দিয়ে আটকিয়ে রেখেছেন(কাহাফ৯৪-৯৭)।ঐ প্রাচীর
ভেঙ্গে তারা সেদিন বেরিয়ে আসবে এবং সামনে যা
পাবে সব খেয়ে ফেলবে।আল্লাহ তায়ালা ঈসা
(আ.)কে মুসলমানদের সঙ্গে নিয়ে তুর পর্বতে চলে যাওয়ার নির্দেশ দেবেন।এসময় ঈসা (আঃ) তাদের জন্য
বদদো‘আ করবেন।এতে স্কন্ধের দিক থেকে এক প্রকার
পোকা সৃষ্টি করে আল্লাহ্ তাদেরকে ধ্বংস করে দেবেন।

★এতোটুকু কথাতে এ জাতি সম্পর্কে সব পরিচয়
জানা যাবে না।কেয়ামত শুরুর আগে বড় ফেতনার এটি
একটি।ইয়াজুজ মাজুজ ব্যাপারে এখন সব ধর্মের
মানুষেরা আলোচনা করছে।খ্রিস্ট ধর্মে তারা নাম
দিয়েছে গগ-মেগগ।এই গগ মেগগকে সনাক্ত
করতে তারা গবেষনা করছে। তৈরী করেছে
অসংখ্য ফিল্ম, ডকুমেন্টরী। কিন্তু সবই সেই বিকৃত উদ্ভট কল্পকথা নির্ভর।অথচ যাদের কাছে আছে সেই চরম সত্য,সঠিক অবিকৃত আসমানী জ্ঞান,যা মানুষকে
এই মহাবিপদ থেকে বাঁচাতে আল্লাহ্ কোরআনে এবং হাদিসের মাধ্যমে আমাদের জানিয়ে দিয়েছেন আমরা সেই মহা মূল্যবান জ্ঞান নিয়ে ঘুমিয়ে আছি। যা
কিছু ব্যখ্যা বিশ্লেষন করেছি তাও ইহুদী
নাসারাদের থেকে ধার করা কল্পকথা।

★এই কল্পনাকে দূরে সরিয়ে ইয়াজুজ মাজুজ
সম্পর্কে সঠিক তথ্য এই সময়েই উপস্থাপন করাটাই জরুরী।ইয়াজুজ মাজুজের মতো বড় ফেতনার পরিচয়টা তুলে ধরারএই কাজটির জন্য আরেকবার কলম ধরলেন সুপরিচিত লেখক “রাজিব হাসান”।যিনি দোয়া কবুলের গল্প১,২ ও দাজ্জাল নামের বই রচনা করেছেন।ইয়াজুজ মাজুজ সম্পর্কিত বইটির নাম দেন”এসো ইয়াজুজ মাজুজ চিনি”।প্রকাশনা হয়েছে আযান প্রকাশনী হতে।মাত্র ৪৮পৃষ্ঠার বইটিতে ইয়াজুজ মাজুজ সম্পর্কে কুরআন ও হাদিসের ভিত্তিতে পুর্নাঙ্গ আলোচনা করা হয়েছে।যা প্রথমিকভাবে জানার জন্য যথেষ্ট।বইটিতে কেয়ামতের আলামত নিয়ে একটু কথা ঠেলে লেখক আসল বিষয়ে প্রবেশ করেছেন।মাত্র একটি বিষয়কে কেন্দ্র করে আলোচনা হয়েছে বলে সল্প
কথাতে সার্বিক পরিচয় ফুটে উঠে।বইটির মুগ্ধকর
প্রচ্ছদ,বাঁধাই, হার্ডকভার ও উন্নত পেপার আরো
আকর্ষী করে তুলেছে।তবে বইটি পড়ে আমার মনে হলো লেখক কুরআন-হাদিস হতে আরো তথ্য সংগ্রহ করে আরেকটু বিশদ আলোচনা করলে ভাল হতো।

অসংখ্য ধন্যবাদ লেখক ও আযান প্রকাশনাকে।
0